শীত উপেক্ষা করে নদী সাঁতরে মধ্যরাতে থানায় হাজির নির্যাতিত নারী

goldenage.com

স্বামীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে কনকনে শীতের রাতে নদী সাঁতরে থানায় হাজির হয়েছেন এক গৃহবধূ। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দিনাজপুরের বিরামপুর থানায় এ ঘটনা ঘটে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে এক নারী ভেজা শরীরে কাঁপতে কাঁপতে থানায় এসে হাজির হোন। বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান এমন দৃশ্য দেখে হতবাক হয়ে যান। স্বামীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে নদী সাঁতরে থানায় আশ্রয় নিতে এসেছেন বলে জানান ওই নারী।

জানা যায়, বিরামপুর উপজেলার বড় বাইলশিরার প্রস্তমপুর গ্রামের ওই গৃহবধূ এক সন্তানের জননী। স্বামী তাকে প্রায়ই মারধর করেন। গতকাল বৃহস্পতিবার লাঠি দিয়ে তাকে বেদম মারধর করে। স্বামী ঘুমিয়ে গেলে রাত ১২টায় চুপিসারে বাড়ি থেকে বের হয়ে শাখা যমুনা নদী সাঁতরে পার হয়ে বিরামপুর থানায় হাজির হোন তিনি। থানার ওসি মনিরুজ্জামান তাৎক্ষণিকভাবে শীত নিবারণের জন্য নারী পুলিশের কাছ থেকে শুকনো পোশাক ও কম্বল নিয়ে ওই নারীকে পরতে দেন। রাতেই পুলিশের টিম পাঠিয়ে স্বামীকে আটক করে নিয়ে আসা হয়। গৃহবধূকে হাসপাতালে পাঠিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থাও করেছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, সংসার টিকিয়ে রাখার জন্য উভয়পক্ষ এখন তাদের দাম্পত্য কলহ মেটানোর চেষ্টা করছে। নির্যাতিতা লিখিত অভিযোগ দিলে তাৎক্ষণিকভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share.

Comments are closed.