মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদনঃ পোষা কুকুর-বিড়ালকে দীর্ঘক্ষণ বেঁধে রাখলে জেল-জরিমানা

মন্ত্রিসভায় আইনের খসড়া অনুমোদনঃ পোষা কুকুর-বিড়ালকে দীর্ঘক্ষণ বেঁধে রাখলে জেল-জরিমানা
goldenage.com

মন্ত্রিসভা নতুন একটি আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে যেটি চূড়ান্তভাবে কার্যকর হলে কুকুরকে চলাফেরার সুযোগ দিতে হবে, একটানা আটকে রাখা যাবেনা।

এই আইনে বলা হয়েছে কুকুরকে চলাফেরার সুযোগ না দিয়ে একটানা ২৪ ঘণ্টা বা তারও বেশি সময় বেঁধে রাখলে জেল জরিমানা ভোগ করতে হবে।

এই অপরাধের জন্য ছয় মাসের জেল হতে পারে।

সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানিয়েছেন যে, ১৯২০ সালের পশুর প্রতি নিষ্ঠুরতা নিরোধ আইনের ভিত্তিতেই এই আইনটি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রত্যেক প্রাণীর মালিক বা তত্ত্বাবধানকারীর দায়িত্ব হবে যৌক্তিক কারণ ছাড়া প্রাণীর প্রতি মানবিক আচরণ করা।

দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশে প্রাণীদের অধিকার নিয়ে কাজ করছে পিপল ফর অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রাকিবুল হক।

তিনি বলেন, “এই আইনের মাধ্যমে বন্যপ্রাণী ছাড়াও পোষা প্রাণী থেকে শুরু করে অন্য যে প্রাণী আছে সবাই বাংলাদেশ রাষ্ট্রের একটি আইনি অধিকারের মধ্যে চলে এলো”।

এর আগে ১৯২০ সালের আইনটি থাকলেও তার কোনো প্রয়োগ ছিলোনা বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মিস্টার হক বলেন, বাংলাদেশে ব্যক্তি বিশেষের ইচ্ছের ওপর নির্ভর করে প্রাণী বাসায় বা ব্যক্তির নিয়ন্ত্রণে কেমন থাকবে। তিনি যদি মানবিক হন, সহমর্মী হন তাহলে হয়তো ভালো থাকে।

Share.

Comments are closed.