পঞ্চগড়ে সাড়ে তিন ঘন্টায় একটি ভোটও পড়েনি

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : বাইরে ছেয়ে গেছে পোষ্টার আর ব্যানারে। প্রার্থীদের লোকজন পোষ্টার ঘিরে তৈরি করেছেন ছোট ছোট ভোট ক্যাম্প, বসে আছেন ভোটারদের সিরিয়াল নম্বর দিয়ে সহায়তা করতে। কিন্ত ভোটারদের কোন সাড়া নেই। শতশত উৎসুক জনতার সেঙ্গে ভোটাররাও ঘুরছেন কেন্দ্রের বাইরে। কেউই যাচ্ছেন না ভোট কেন্দ্রের ভিতরে।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হলেও বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত কোন ভোট পড়েনি। এমন চিত্র দেখা গেছে পঞ্চগড় জেলা শহরের একমাত্র ভোটকেন্দ্র পঞ্চগড় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

কেন্দ্রের ভিতরে গিয়েও দেখা গেল শুনশান নিরবতা। প্রিজাইডিং অফিসারসহ সকল কর্মকর্তা, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও পোলিং এজেন্টরাসহ সবাই অলস সময় পার করছেন।

ভোটকেন্দ্রের বাইরে কয়েকজন ভোটারের সাথে ভোট দেওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘ভাই সময় তো আছে ২ টা পর্যন্ত। ভোট দিবো শেষের দিকে।’

ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার নির্বাচিত চেয়ারম্যান, মেম্বার ভোট প্রদান করছেন এবারের জেলা পরিষদ নির্বাচনে।

পঞ্চগড় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং অফিসার এবিএম শাহিনুজ্জামান বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত (বেলা সাড়ে ১২টা) কোন ভোটার আসেননি আমরা অপেক্ষায় আছি। তবে এই কেন্দ্রে ৪২ টি ভোট আছে। সম্ভবত তারা শেষ সময়ে আসবেন।’

পঞ্চগড়ের পাচঁটি উপজেলা ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ৪ টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে সদস্য পদে ১২ জন এবং ১৫টি সাধারণ ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৫৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মোট গঠিত ১৫ টি ওয়ার্ডে ৫৮২ জন নির্বাচক মন্ডলীর সদস্যের মধ্যে ১৩৫ জন নারী এবং ৪৪৭ জন পুরুষ ১৫ টি কেন্দ্রে তাদের ভোধিকার প্রয়োগ করছেন।

শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য পুলিশ, বিজিবি ও র‌্যাবের স্ট্রাইকিং ফোর্স ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ জেলার ১৫ টি ভোটকেন্দ্রে টহল অব্যাহত রেখেছেন।

Share.

Comments are closed.