ডোমারে ৮ মাস বয়সী বধূর সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা

নীলফামারী প্রতিনিধি.

নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় পিংকি আক্তার (১৮) নামের এক গৃহবধু ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার,১৮ জুন দুপুরে নিজ শোয়র ঘর হতে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ডোমার থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। পিংকি উপজেলার ডোমার সদর ইউনিয়নের ছায়া পাড়া এলাকার সাজেদুল ইসলামের স্ত্রী।
গৃহবধূর শ্বশুরবাড়ি সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে নাস্তা করার পর পিংকি ঘরের দরজা দিয়ে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
দুপুরে ডোমার থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো: মোস্তাফিজার রহমান পিংকির লাশ উদ্ধার করে জানান, লাশের সাথে একটি চিঠি পাওয়া গেছে। চিঠিতে লেখা ছিল, তোমার জেদ নিয়ে তুমি থাকো। আমি চলে গেলাম। ইতি পিংকি। তিনি আরো জানান, লাশের ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হবে। এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।
জানা গেছে, গত আট মাস আগে ডোমার পৌর এলাকার আট নং ওয়ার্ড বসতপাড়া এলাকার আউয়াল হোসেনের মেয়ে পিংকি আক্তারের সাথে সাজেদুল ইসলামের বিয়ে হয়।বিয়ের পর থেকেই পিংকির দাম্পত্য জীবনে ছোটখাট নানা ধরণের সমস্যা লেগেই ছিল।

Share.

Comments are closed.