এক পাখির প্রেমে পিতা-পুত্রের আত্মহত্যার চেষ্টা

পাখির প্রেমে হাতীবান্ধায় পিতা-পুত্রের আত্মহত্যার চেষ্টা

মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা (লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি):

জেলার হাতীবান্ধায় উপজেলায় পোষা টিয়া পাখিকে কুকুরে মেরে ফেলায় বাবা ছেলে বিষপান করে আত্নহত্যার চেষ্টা করেছেন।
শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের দোলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আশংকাজনক অবস্থায় বাবা ছেলেকে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহতরা হলেন, ওই দোলাপাড়া গ্রামের আবুল হোসেন (৭০) ও তার ছেলে রবিউল ইসলাম (২৫)। স্থানীয়রা জানান, দোলাপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের বাড়িতে একটি টিয়া পাখি পোষতেন। শুক্রবার বিকেলে ওই পাখিটি খাচা থেকে ছেড়ে দিয়ে মাকে দেখতে বলে বাহিরে চলে যান ছেলে রবিউল ইসলাম। পাখিটি উঠানে ঘুড়াফেরা করলে একটি কুকুর মেরে ফেলে। ফিরে এসে পোষা প্রিয় টিয়া পাখির মৃতদেহ দেখে রবিউল তার মায়ের সাথে ঝগড়ায় জড়ায়। এতে মায়ের সাথে অভিমান করে রবিউল ইসলাম বিষপান করে। ছেলেকে বিষপান করতে দেখে অভিমান করে রবিউলের বাবা আবুল হোসেনও বিষপান করে।
স্থানীয়দের সহায়তায় পরিবারের লোকজন আশংকাজনক অবস্থায় আহত বাবা ছেলেকে উদ্ধার করে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রমজান আলী লালমনি প্রতিদিনকে বলেন, বাবা ছেলে দুই জনেই আশংকা মুক্ত। তবে সুস্থ হতে কিছুটা সময় লাগবে।

Share.

Comments are closed.