আদিতমারীতে পুলিশের এসআইকে কুপিয়ে আসামী ছিনতাই

 

 

 

লালমনিরহাটরতিনিধিঃ ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করতে গিয়ে আদিতমারী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহিদ হাসানকে কুপিয়ে আহত করেছে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা। এসময় পুলিশের কাছ সাইফুল নামের ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীকে ছিনিয়ে নিয়েছে তারা।
 

সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের মান্নানের চৌপতি নামক স্থানে পুলিশের উপর এ হামলার ঘটনা ঘটে।আহত পুলিশের এসআই জাহিদ হাসানকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর কিছুক্ষণ পর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাত ৮টার দিকে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল সুত্র জানায়।
 

লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক জানান, এসআই জাহিদকে আঘাত করে আসামী পালিয়ে গেছে। পুলিশ আসামী গ্রেফতারে জোর তৎপরতা শুরু করেছে। তিনি আরো জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য এসআই জাহিদকে রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।জানা গেছে, কিছুদিন আগে সাইফুল নামের এক ব্যক্তিকে মাদকসহ গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ। সম্প্রতি সাইফুল আদালত থেকে জামিন নিয়ে বাইরে এসে পুনরায় মাদক ব্যবসা শুরু করে।
এদিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার সন্ধ্যায় এসআই জাহিদ হাসান সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের মান্নানের চৌপতি নামক স্থানে মাদকসহ তাকে আটক করে। এসময় সাইফুলসহ ওই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আনোয়ার, দুলাল, মনোয়ার, আলমগীরসহ তার উপর অতর্কিতভাবে রামদা দিয়ে হামলা চালায়ি সাইফুলকে ছিনিয়ে নেয়।
 

 

 

 

 

হামলায় এসআই জাহিদের বাম হাত, গলার বাম পার্শ্ব, বাম কানে মারাতœকভাবে জখম হয়। খবর পেয়ে আদিতমারী থানা পুলিশ গিয়ে আহত পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে লালমনিরহাট সদর ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।  আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হরেশ্বর রায় মুঠোফোনে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন |

Share.

Comments are closed.